ব্রেকিং নিউজ

কাদের ভোগ সম্পদ বিনা ভোগে ক্ষয় হয়, কোন কাজে আসে না?

কাদের ভোগ সম্পদ বিনা ভোগে ক্ষয় হয়, কোন কাজে আসে না?

ইলা মুৎসুদ্দী

bbb11

একদিন কোশলরাজ প্রসেনজিৎ দিন দুপুরে ভগবানের নিকট উপস্থিত হলেন। ভগবান তাঁকে জিজ্ঞেস করলেন মহারাজ, এদিনদুপুরে আপনি কোত্থেকে আসছেন?” উত্তরে রাজা বললেন ভদন্ত, শ্রাবস্তীতে শেঠ গৃহপতি পরলোক গমন করেছেন। আমি তাঁর অপুত্রক সম্পদ রাজান্তঃপুরে আনিয়া

এখানে আসছি। তাঁর সঞ্চিত স্বর্ণমুদ্রা আশি লক্ষ, রৌপ্যের কথাই বা কি! এ শেঠের এরকম অন্নভোগ বা আহার ব্যবস্থা ছিল যে তিনি কাঞ্জিক বা আমানি সহ ক্ষুদের ভাত খেতেন। তাঁর এরকম পরিধেয় ছিল যে, তিনি তিন টুকরো জোড়া শণবস্ত্র পরতেন এবং তিনি জর্জর রথে পর্ণ ছত্র ধারণে চলাফেরা করতেন।”

ভগবান- হাঁ, মহারাজ, অসৎ ব্যক্তি বিপুল ভোগসম্পদ পেয়ে নিজেকেও সুখী করেনা, মাতাপিতাকেও সুখী করেনা, তুষ্ট করেনা, দাস কর্মচারী বন্ধুবান্ধবকে সুখী করে না তুষ্ট করে না এবং শ্রমণ ব্রাহ্মণদের জন্য সুখস্বর্গ দায়ক উন্নতিপ্রদ দানের ব্যবস্থা করে না। তার সেই অব্যবহৃত ভোগসম্পদ রাজা

বাজেয়াপ্ত করে, চোর লুন্ঠন করে, অগ্নি দগ্ধ করে, বন্যা ভাসিয়ে নেয়, অপ্রিয় উত্তরাধিকারীরা হরণ করে। এমনি সে ভোগ সম্পদ বিনা ভোগে ক্ষয় হয়, কোন কাজে আসে না।

মহারাজ, জনহীন স্থানে যেমন স্বচ্ছ শীতল সুমধুর জলপূর্ণ লহরী শোভিত সুন্দর সোপানযুক্ত রমণীয় সরোবরের জল কেউ নেয় না, পান করে না, তাতে কেউ øান করে না, প্রয়োজন মিটায় না- এভাবে ঐ অব্যবহৃত জল ক্ষয় হয়, কোন কাজে লাগে না, তেমনি অসৎ ব্যক্তি ভোগসম্পদ পেয়ে নিজেকে সুখী করে না সন্তুষ্ট করে না …. বিনাভোগে ক্ষয় হয়, কোন কার্যে লাগে না। কিন্তু সৎ লোক বিপুল ভোগসম্পদ পেয়ে নিজেকে সুখী করে সন্তুষ্ট করে, পিতামাতাকে সন্তুষ্ট করে সুখী করে, স্ত্রীপুত্র দাস কর্মচারী বন্ধুবান্ধবকে সুখী করে সন্তুষ্ট করে এবং শ্রমণ ব্রাহ্মণদের জন্য সুখস্বর্গদায়ক উন্নতিপ্রদ দানের ব্যবস্থা করে। তার সে সুব্যবহৃত ভোগসম্পদ রাজা বাজেয়াপ্ত করেনা, চোর লুণ্ঠন করেনা, অগিড়ব দগ্ধ করেনা, বন্যা ভাসিয়ে নেয় না, অপ্রিয় উত্তরাধিকারীরা হরণ করে না। মহারাজ, যেমন গ্রামে কিংবা নগরের অনতিদূরে স্বচ্ছ শীতল সুমধুর জলপূর্ণ লহরী শোভিত সুন্দর সোপান শ্রেণীযুক্ত রমণীয় সরোবরের জল লোকে নিয়ে যায়, পান করে, øান করে, যথেচ্ছা প্রয়োজন মিটায়- এভাবে সম্যক প্রকারে তার জল ব্যবহারে আসে, বৃথা শুকায় না, তেমনি সৎলোক ভোগসম্পদ লাভ করে নিজেকে সুখী করে সন্তুষ্ট করে …. ভোগসম্পদ কার্যে আসে, বৃথা নষ্ট হয় না। মনুষ্যবিহীন স্থানে শীতল জল যেমন বিনা পানে শুকিয়ে যায়, তেমন কাপুরুষ বা অসজ্জন ধনলাভ করে নিজেও ভোগ করে না পরকেও দেয় না অর্থাৎ তা বৃথা নষ্ট হয়। যে বীর বিজ্ঞ ব্যক্তি ভোগসম্পদ প্রাপ্ত হয়ে নিজে ভোগ করেন এবং (জনহিতকর) কার্য করেন, সে শ্রেষ্ঠ ব্যক্তি জ্ঞাতিসংঘকে (জ্ঞাতি কুটুম্বদিগকে) পোষণ করে আনন্দিতভাবে স্বর্গস্থান লাভ করেন।

সূত্র ঃ সংযুক্ত নিকায় ১ম ও ২য় খন্ড, অনুবাদক-শীলানন্দ ব্রক্ষ্মচারী

সম্মন্ধে ela mutsuddi

এটা ও দেখতে পারেন

খুব সংক্ষেপে মহাসতিপট্ঠান সহায়িকা

একূশটি উপায়ে অরহ্ত্ত্ব লাভের উপায় তথা কর্মস্থান সংযূক্ত গভীর অর্থসংযুক্ত মহাসতিপট্ঠান সূত্তI এখানে একুশটি উপায়ে …

Leave a Reply