ব্রেকিং নিউজ

অহিংসা, মৈত্রী দিয়ে সমাজ গড়তে হবে – সুমন রাজ

পৃথিবী জুড়ে অহিংসা, অসাম্প্রদায়িকতা কথা বলা হচ্ছে প্রতিনিয়ত।বাস্তবে আর কথায় যেনো কোথায় মিল নাই!চলছে শুধু হিংসার বঞ্চনা,জীবন নাশের দৌরাত্ন্য, আধিপত্য বিস্তারের ব্যস্ত সবাই।কোথায় নাই যেনো কারো প্রতি সহনশীলতা,সহমর্মিতা, মানবতাবোধ।
বিজ্ঞানের উৎকর্ষে এসে ও প্রাচীন যুগের গুহাবাসী হিংস্রের মত আচরন চলছে নিখিল বিশ্বে।সোশ্যাল মিডিয়া,ও নিত্যনৈমিওিক সংবাদ সাধারন মানুষের মন কে ব্যথিত করে ভারাক্রান্ত করে তুলছে অবিরত। সমাজ, রাষ্ট হতে শুরু করে সব খানে চলছে হিংসাবাদীদের জয় জয় কার রাজত্ব।ধর্ম কে নিজ স্বার্থ ব্যবহার করে রাতারাতি হয়ে ওঠছে ধর্মীয় গুরু, ধর্মীয় নেতা। আর এই ধর্মীয় গুরুরা,ও ধর্মীয় নেতারা শিখাচ্ছে ভুল নীতি।এই সব হিংসাবাদী, নিজ স্বার্থে মরিয়া নেতা, ধর্মীয় গুরুরা সমাজ, রাষ্ট,জনপদ কখনও সুখী করতে পারবেনা। “তথাগত বুদ্ধ বলছেন -অহিংসা দিয়ে হিংসাকে প্রশমিত করতে হবে “।হিংসা, প্রতি হিংসার জন্ম দেয়।অতএব হিংসা কে জয় করতে প্রয়োজন, ক্ষমা, মৈত্রী,ভালবাসা।মৈত্রীর অনন্ত গুন,অহিংসার অনন্ত গুন। এই গুন দিয়ে নিজেকে নয় সারা নিখিল বিশ্ব কে জয় করা সম্বব।
প্রিয় পাঠক, সাড়া পৃথিবীর কথা বলবো না, শুধু বলবো -আমরা যারা অহিংসা পরম ধর্ম মেনে চলি,বুদ্ধনীতিতে বিশ্বাসী আমরা কি পারি না মৈত্রী,অহিংসা, দিয়ে এক বৌদ্ধ সমাজ গড়ে তুলতে?নিজ স্বার্থ পয়দা কারী গুরুবাদ ও নেতা দের বয়কট করতে?শুরু হোক অহিংসা, মৈত্রী দিয়ে ধর্মের নামে মিথ্যাচারী গুরুবাদের ও নেতা দের বিরুদ্ধে নীরব প্রতিবাদ। বুদ্ধের সেই অহিংসা, মৈত্রী নীতিতে একে অপরকে ভালবাসতে শিখি।সত্য কে মনে ধারন করে সত্যর পথে ধাবিত হয়।সত্য কে গ্রহন করি।এতেই দুর্লভ মানব জীবন সার্তক হবে আমরা বৌদ্ধ জাতি হিসাবে।আর নয় হিংসা, বিদ্ধেষ,মিথ্যাচারী গুরুবাদ,স্বার্থ হাসিল কারী নেতা। অহিংসা, মৈত্রীর গুনে গড়ে তুলি বৌদ্ধ সমাজ।নৈতিকতার উৎকর্ষে সদ্ধর্মের অগ্রগতিতে মিথ্যাচার নয়, সত্য কে ধারন করি, সত্যকে পক্ষে জয়ধব্বনি তুলি।

সম্মন্ধে SNEHASHIS Priya Barua

এটা ও দেখতে পারেন

ঈশ্বরবাদে বিশ্বাসী নয় বৌদ্ধরা, -সুমন রাজ

বৌদ্ধরা ঈশ্বরবাদী নয়,নিজেই নিজের মুক্তিদাতা। ================================== সুমন রাজ জগত জুড়ে যত ধর্মের উৎপত্তি, সৃষ্টি হয়েছে …

Leave a Reply