ব্রেকিং নিউজ

🌺একটা জোকস – বাস্তবে ঘটেছে ৪র্থ পর্ব🖋

আজ পুর্ববর্তী জোকসের উত্তরে তথাগতের অলৌকিক না বলে বলা যেতে পারে অতিলৌকিক শক্তি তথা অভিজ্ঞাগুলোর কথা বলবো ✍️ত্রিপিটকে ছয় ধরনের অভিজ্ঞার উল্লেখ পাওয়া যায় যার সবি বিদ্যমান ছিলো তথাগতে যথাঃ ১)ইধি বিদ্যা বা আধিদৈবিক ক্ষমতা ২) দিব্ব-সোতা বা অলোকদৃষ্টি ৩) চেতো-পারিয়া বা টেলিপ্যাথি ৪) নিজের পূর্বজন্মের স্মৃতিকথন বা পুব্বে-নিবাসনুস্‌সতি ৫) অন্যের পূর্বজন্ম ও জন্মান্তর দর্শনের ক্ষমতা বা দিব্ব-চক্‌খু ৬) আসবক্ষয় যা প্রদান করে অরহত্ব। 🌼শুধু মাত্র সমাধির মাধ্যমে প্রথম ৫টি অর্জন সম্ভব তবে ৬নংটি যা আসবক্ষয় বিদর্শন জ্ঞান ব্যতিরেকে সম্ভব নয় যা হচ্ছে দুঃখ নিবৃত্তি। উল্লেখ্য এই ধরনের অভিজ্ঞাগুলো ৪র্থ ধ্যান (jhana) পরবর্তী লাভ করে থাকে🕵️‍♀️অর্থাৎ এর সব কটি যেমন অর্জন করা সম্ভব আবার এর যেকোন ১টি মাত্র ও কারো পক্ষে অর্জন করা সম্ভব। অর্থাৎ মনে করুন কেউ শুধু পুব্বে-নিবাসনুস্‌সতি লাভ করে থাকলে তিনি নিজ পুর্ব জন্ম সম্পর্কে অবহিত কিন্তু অন্যের পুর্বজন্ম সম্পর্কে বলতে পারবেন না কারন তিনি দিব্ব-চকখু লাভ করেন নি। ঠিক তেমনি ভাবে আবার যিনি শুধু অরহত্ব লাভ করেছেন কিন্তু অন্যগুলো লাভ করেন নি তার পক্ষে অন্য গুলো অসম্ভব যা সংযুক্ত নিকায়ের নিদানবর্গে সুসিম সুত্রে পরিস্কার উল্লেখ আছে (পুরো সুত্রটি নীচে দেয়া ত্রিপিটকের লিঙ্ক থেকে পড়তে পারেন)। 🌸মনে আছে কিনা জানিনা অনেক আগে এক পোষ্টে উল্লেখ করেছিলাম তথাগতের সাথে এক সন্যাসীর সাথে সাক্ষাৎ হয় যিনি ২৫ বছর সমাধি পরবর্তী হেটে নদী পার হয়ে যেতে পারতেন – উত্তরে বলা হয়েছিল সারার্থ ২৫ বছর নষ্ট করে অতি লৌকিক ক্ষমতা বলে নদী পার না হয়ে কয়েক টাকার বিনিময়ে ফেরী বা নৌকাযোগে নদী পার হতে এবং সেই ২৫টা বছর যদি তোমার অভিষ্ট হতো আসবক্ষয় তবে হয়তো ভব দুঃখ সমুদ্রু পারি দিতে পারতে🥀 সুসিম সুত্রে দেখা যায় সুসিম তথাগতকে যখন প্রশ্ন করে জানলেন যে প্রথম ৫টি অভিজ্ঞা না থাকলে ও আসবক্ষয় বা অরহত্ব অভিজ্ঞা অর্জন সম্ভব তখন তিনি তা কি করে জানতে চাইলে তথাগত যা বলেছিলেন সারার্থ, আগে ধর্মস্থিতি জ্ঞান, পরে নির্বাণে জ্ঞান। ধর্ম মানে হচ্ছে সৃষ্টিজগতের যেকোনো কিছু যথা জীব হোক বা জড় হোক, দেহ হোক বা মন হোক যেকোনো কিছু এবং তাদের অনিত্য, দুঃখ ও অনাত্মমূলক স্থিতি বা স্বভাব হচ্ছে ধর্মস্থিতি। সেই স্বভাবে জ্ঞান হচ্ছে ধর্মস্থিতি জ্ঞান এবং সে স্রোতে পতিত হয়ে (দান, শীল, সমাধি, প্রজ্ঞা) নির্বান জ্ঞান🌹রূপ নিত্য নাকি অনিত্য?’ ‘ভন্তে, অনিত্য।’ ‘যা অনিত্য তা দুঃখ নাকি সুখ? ‘ভন্তে, দুঃখ।’ ‘যা অনিত্য, দুঃখ ও বিপরিণামধর্মী (নিত্য পরিবর্তনশীল), তা কি ‘এটা আমার, এটা আমি, এটা আমার আত্মা’ বলে দেখার উপযুক্ত?’ ‘ভন্তে, না।’ ‘বেদনা নিত্য নাকি অনিত্য?’ ‘ভন্তে, অনিত্য।’ ‘যা অনিত্য তা দুঃখ নাকি সুখ?’ ‘ভন্তে, দুঃখ।’ ‘যা অনিত্য, দুঃখ ও বিপরিণামধর্মী (নিত্য পরিবর্তনশীল), তা কি ‘এটা আমার, এটা আমি, এটা আমার আত্মা’ বলে দেখার উপযুক্ত?’ ‘ভন্তে, না।’ ‘সংজ্ঞা নিত্য নাকি অনিত্য?’ ‘ভন্তে, অনিত্য।’… ‘সংস্কার নিত্য নাকি অনিত্য?’ ‘ভন্তে, অনিত্য।’ ‘যা অনিত্য তা দুঃখ নাকি সুখ?’ ‘ভন্তে, দুঃখ।’ ‘যা অনিত্য, দুঃখ ও বিপরিণামধর্মী (নিত্য পরিবর্তনশীল), তা কি ‘এটা আমার, এটা আমি, এটা আমার আত্মা’ বলে দেখার উপযুক্ত?’ ‘ভন্তে, না।’ ‘বিজ্ঞান নিত্য নাকি অনিত্য?’ ‘ভন্তে, অনিত্য।’ ‘যা অনিত্য তা দুঃখ নাকি সুখ?’ ‘ভন্তে, দুঃখ।’ ‘যা অনিত্য, দুঃখ ও বিপরিণামধর্মী (নিত্য পরিবর্তনশীল), তা কি ‘এটা আমার, এটা আমি, এটা আমার আত্মা’ বলে দেখার উপযুক্ত?’ ‘ভন্তে, না।’
‘সুসিম, তাই অতীত, অনাগত ও বর্তমান আধ্যাত্মিক বা বাহ্যিক বা স্থুল বা সূক্ষন বা হীন বা উত্তম বা দূরে অথবা নিকটে যা কিছু রূপ আছে, সেসব রূপ আমার নয়, আমি নই, আমার আত্মা নয়; এভাবে যথাযতভাবে সম্যক প্রজ্ঞায় দেখা উচিত। অতীত, অনাগত ও বর্তমান আধ্যাত্মিক বা বাহ্যিক বা স্থুল বা সূক্ষন বা হীন বা উত্তম বা দূরে অথবা নিকটে যা কিছু বেদনা আছে, সেসব বেদনা আমার নয়, আমি নই, আমার আত্মা নয়; এভাবে যথাযতভাবে সম্যক প্রজ্ঞায় দেখা উচিত। অতীত, অনাগত ও বর্তমান আধ্যাত্মিক বা বাহ্যিক বা স্থুল বা সূক্ষন বা হীন বা উত্তম বা দূরে অথবা নিকটে যা কিছু সংজ্ঞা আছে, সেসব সংজ্ঞা আমার নয়, আমি নই, আমার আত্মা নয়; এভাবে যথাযতভাবে সম্যক প্রজ্ঞায় দেখা উচিত। অতীত, অনাগত ও বর্তমান আধ্যাত্মিক বা বাহ্যিক বা স্থুল বা সূক্ষন বা হীন বা উত্তম বা দূরে অথবা নিকটে যা কিছু সংস্কার আছে, সেসব সংস্কার আমার নয়, আমি নই, আমার আত্মা নয়; এভাবে যথাযতভাবে সম্যক প্রজ্ঞায় দেখা উচিত। অতীত, অনাগত ও বর্তমান আধ্যাত্মিক বা বাহ্যিক বা স্থুল বা সূক্ষন বা হীন বা উত্তম বা দূরে অথবা নিকটে যা কিছু বিজ্ঞান আছে, সেসব বিজ্ঞান আমার নয়, আমি নই, আমার আত্মা নয়; এভাবে যথাযতভাবে সম্যক প্রজ্ঞায় দেখা উচিত।’
🌷“সুসিম, এরূপে দেখে শ্রুতবান আর্যশ্রাবক রূপের প্রতিও নির্বেদযুক্ত হয়, বেদনার প্রতিও নির্বেদযুক্ত হয়, সংজ্ঞার প্রতিও নির্বেদযুক্ত হয়, সংস্কারের প্রতিও নির্বেদযুক্ত হয় এবং বিজ্ঞানের প্রতিও নির্বেদযুক্ত হয়। নির্বেদযুক্ত হয়ে বিরাগপ্রাপ্ত হয়, বিরাগে বিমুক্ত হয়, বিমুক্তিতে ‘বিমুক্ত হয়েছি’ বলে জ্ঞান উদয় হয়। ‘জন্ম ক্ষীণ হয়েছে, ব্রহ্মচর্য পরিপূর্ণ হয়েছে, করণীয় কৃত হয়েছে, এ জন্মের পর আর কোনো পুনর্জন্ম নেই’ বলে যথাযথভাবে জানে।”
🌻“সুসিম, ‘জন্মের কারণে জরা-মৃত্যু’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘ভবের কারণে জন্ম’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘উপাদানের কারণে ভব’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘তৃষ্ণার কারণে উপাদান’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘বেদনার কারণে তৃষ্ণা’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘স্পর্শের কারণে বেদনা’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘ষড়ায়তনের কারণে স্পর্শ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘নামরূপের কারণে ষড়ায়তন’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘বিজ্ঞানের কারণে নামরূপ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘সংস্কারের কারণে বিজ্ঞান’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘অবিদ্যার কারণে সংস্কার’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ “সুসিম, ‘জন্ম নিরোধে জরা-মৃত্যু নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘ভব নিরোধে জন্ম নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘উপাদান নিরোধে ভব নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘তৃষ্ণা নিরোধে উপাদান নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘বেদনা নিরোধে তৃষ্ণা নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘স্পর্শ নিরোধে বেদনা নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘ষড়ায়তন নিরোধে স্পর্শ নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘নামরূপ নিরোধে ষড়ায়তন নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘বিজ্ঞান নিরোধে নামরূপ নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘সংস্কার নিরোধে বিজ্ঞান নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ ‘অবিদ্যা নিরোধে সংস্কার নিরোধ’ দেখ কি? ‘হ্যাঁ ভন্তে।’ 💐এভাবে সুসিম অরহত্ব প্রাপ্ত হওয়ার পরে ও দেখা গেলো সুসিম প্রথম ৫টি অভিজ্ঞার কোনটি লাভ করেন নাই বরং শুধু লাভ করিয়াছেন অরহত্ব। সুত্রটি শেষ হয় নিম্নোক্তভাবে
☘️যে ব্যক্তি অপরাধকে অপরাধরূপে দেখে ধর্মানুসারে প্রতিকার করে এবং ভবিষ্যতে সংযত হয়, এটা আর্য-বিনয়ে উন্নতি।’☘️
🙏সে ভাবেই আহবান করেছি ট্রাডিশনাল বৌদ্ধ না হয়ে বুদ্ধ হবার প্রচেষ্টায় বৌদ্ধ হউন। পোষ্টটি শেয়ার করে ধর্মদান করুন। জগতে্র সকল প্রানী সুখী হউক – মনুষত্ব বিকাশের ধর্ম- বুদ্ধের শিক্ষা চীরজীবি হউক। 🙏
🙏অনুরোধে হতে পারে ৫ম পর্ব🙏
🌺১ম পর্বের লিঙ্ক
https://www.facebook.com/photo.php?fbid=10156934944424302&set=a.10151410980809302&type=3&theater
🌺২য় পর্বের লিঙ্ক
https://www.facebook.com/photo.php?fbid=10156935980764302&set=a.10151410980809302&type=3&theater
🌺৩য় পর্বের লিঙ্ক
https://www.facebook.com/photo.php?fbid=10156942230679302&set=a.10151410980809302&type=3&theater

🙏আমার অন্য লেখাগুলো পড়তে চাইলে নিচের লিঙ্ক থেকে পড়তে পারেন🙏
http://news.nirbankami.com/…/%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a8%e…/

☸️বাংলায় সম্পুর্ন ত্রিপিটক বলে মহাপাপ করতে চাই না ❤️ কারন অর্থকথা ছাড়া ত্রিপিটক সম্পুর্ন হয় না (কিছু অর্থকথা) এখনো বাংলায় অনুদিত হয়নি। তবে অর্থকথা ছাড়া ত্রিপিটকের বেশীর ভাগ বই সহ মোট ৬৫টি পড়ুন বিনা পয়সায়, আপনার মোবাইল, টেলিভিশন, ট্যাব্লেট, আইপ্যাড থেকে যখন খুশী তখন। প্রায় পাঁচ বছর আগে করা, এন্ড্রয়েড ফোনে গুগল প্লে ষ্টোরে ক্লিক করে সার্চ বক্সে লিখুন Snehashis Priya Barua আর আপেল ফোন Iphone হলে IBooks বা Books এ ক্লিক করে সার্চ বক্সে লিখুন Snehashis Priya Barua এবং এন্টার চাপলে দেখাবে সব বইগুলি। তৎপর যেটি খুশী সেটি ইনষ্টল করে নেন তারপর পড়তে শুরু করুন আর যদি চান মোবাইল কিন্তু আপনাকে তা পড়ে শোনাতে পারবে।
Android Phone থেকে গুগোল প্লেষ্টোরে নিম্নোক্ত লিঙ্কে ক্লিক করে ও যেতে পারেনঃ
https://play.google.com/store/search

আর আপেলের জন্য (যেমন Iphone) নিম্নোক্ত আপাততঃ
১) বিনয়পিটকে চুল্লবর্গ https://books.apple.com/us/book/id1175364753
২) দীর্ঘ নিকায় ১ম ভাগ https://books.apple.com/us/book/id1177815709
৩) দীর্ঘ নিকায় ২য় ভাগ https://books.apple.com/us/book/id1177829910
৪) দীর্ঘ নিকায় ৩য় ভাগ https://books.apple.com/us/book/id1177831114
৫) বিনয়পিটকে মহাবর্গ https://books.apple.com/us/book/id1173750171
৬) বিনয়পিটকে পরিবার পাঠ https://books.apple.com/us/book/id1175122398
৭) অপদান ১ম খন্ড https://books.apple.com/us/book/id1177809651
৮) হৃদয়ের দরজা খুলে দিন https://books.apple.com/us/book/id1175849345
৯) দৃষ্টিজাল https://books.apple.com/us/book/id1175941489

সম্মন্ধে SNEHASHIS Priya Barua

এটা ও দেখতে পারেন

মেডিটেশান এবং আপনার ব্রেইন

Leave a Reply