ব্রেকিং নিউজ

একজন এসএসসি পাস করা, বাবাকে হারিয়ে অসহায়, সন্তানকে বাঁচাতে মায়ের আকুতি—

নাম :- সুপ্রিয় চাকমা, পিতা:- মৃত অরবিন্দু চাকমা, মাতা :- নির্মল সোনা চাকমা, গ্রাম :- কতর খাইয়া, উপজেলা /থানা :-জুরছড়ি, জেলা:- রাঙ্গামাটি।

সুপ্রিয় চাকমা সকলের সহায়তায় বাঁচতে চায়। বয়সে সে এখনও তরুণ সবেমাত্র এসএসসি পাস করেছে। জীবনের অনেক সময় সামনে পড়ে রয়েছে তার। সে বাঁচার আকুতি জানাচ্ছে সকল মানুষের কাছে। মানুষ তখনই অন্যের দ্বারস্থ হয় যখন তার সহায় সম্বল কিছুই থাকে না। সুপ্রিয় চাকমা অসহায়ত্বের কারণে গণ মানুষের কাছে হাত পাত্তে বাধ্য হয়েছেন। একদিকে রোগে যন্ত্রনাময় জীবন অন্যদিকে পির্তৃহীন অভাবের তাড়না। তার একমাত্র বিধবা মা কি আর করতে পারবে তার এই দূরারোগ্য ব্যাধির চিকিৎসা। তারপরও তার মা খেয়ে না খেয়ে যথাসাধ্য চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রথম অবস্থায় যদি ভাল ডাক্তারের চিকিৎসা পেতেন তাহলে আজকে সুপ্রিয় চাকমার এ করুণ পরিস্থিতির মুখোমুখী হতে হতো না। প্রায় এক বছর আগে থেকে তার চোখের সমস্যা দেখা দিয়েছিল, সে সময়ে চোখ শুধু চুলকাতো আর পানি পড়তো তখন তারা রাঙ্গমাটিতে স্থানীয় ডাক্তার দেখান এভাবে চিকিৎসা করতে করতে রোগটি আরো বেড়ে যায়। পরবর্তীতে চট্টগ্রামে এসে চিকিৎসা করেন। চট্টগ্রামে ক্যান্সার বিশেযজ্ঞ ডাঃআলী আজগর চৌধুরীর চিকিৎসাধীনে ছিলেন। উক্ত ডাক্তার ১৫ হাজার টাকা মূল্যের ইনজেকশন দিয়ে দেন রোগ নিরাময়ের জন্য তখন একটু উন্নতি হয়। এই চলতি মাসেই তারা আবার আসেন ঐ ডাক্তারের কাছে, এতোদিন টাকার অভাবে তারা ডাক্তারের কাছে আসতে পারে নাই।ডাক্তার জানিয়ে দিয়েছেন অনেক দেরি করে ফেলেছেন সুপ্রিয় চাকমাকে আর ইনজেকশন দেওয়া যাবে না। তার শরীরে আর ইনজেকশন লোড নেওয়ার ক্ষমতা নেই। তাকে বাঁচাতে হলে জরুরী দেড় মাসের মধ্যে ইন্ডিয়া নিয়ে অপারেশন করাতে হবে।অপারেশনের জন্য কম করে হলেও ৭-৮লাখ টাকা দরকার বলে ডাক্তার জানিয়ে দিয়েছেন।এখন সুপ্রিয় চাকমার মা দিশাহারা হয়ে বিভিন্ন জায়গায় ধর্ণা দিচ্ছেন একমাত্র ছেলেকে বাঁচানোর জন্য। বন্ধুরা আসুন আমরা সকলে মিলে সুপ্রিয় চাকমার জন্য চিকিৎসা তহবিল সংগ্রহ করি।

আপনার আমার সাধ্যনুযায়ী সুপ্রিয় চাকমাকে সাহায্য সহযোগিতা করি। আপনার আমার সহযোগিতায় বাঁচতে পারে সুপ্রিয় চাকমার জীবন। আসুন আমরা সকলে মিলে সুপ্রিয় চাকমার পাশে দাঁড়াই মানবতাকে জাগিয়ে তুলি। মানুষ তো মানুষের জন্য। কারোর বিপদে এগিয়ে আসাই প্রতিটি মানুষের মানবিক দায়িত্ব। যারা অসহায় মানুষের পাশে থাকে তাদের বিপদে ভগবানও নিশ্চই তাদের সহায় হন। আসুন আমরা মানুষ হিসাবে আরো এক অসহায় মানুষের জন্য এগিয়ে আসি।

বিকাশ নাম্বারঃ
01871568268(ত্রিরত্ন সংঘ)
01676304389(প্রবীর বড়ুয়া)
01845236440(দেবু বড়ুয়া)

#ত্রিরত্ন_সংঘ।

সম্মন্ধে Debapriya Barua

এটা ও দেখতে পারেন

মানবতার ডাকে করোনা মোকাবেলায় বৌদ্ধ তরুণরা

মানুষ মানুষের জন্য জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভুতি কি,মানুষ পেতে পারেনা ———————————————————————————————- সারাবিশ্বে মহামারী আকার …

Leave a Reply