ব্রেকিং নিউজ

ক্যালিফোর্নিয়া বোধি বিহারের ইতিকথা

লিখেছেন:-বাপ্পা বড়ুয়া,ভার্জিনিয়া,যুক্তরাষ্ট্র থেকে !!বিশ্বের সব ধর্ম ও সংস্কৃতির মিলন কেন্দ্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ধর্মীয় স্বাধীনতা চমৎকার। বিভিন্ন সময়ে নানা ধর্ম, সংস্কৃতির ও সভ্যতার স্পর্শে এই দেশের সমৃদ্ধি ও শ্রীবৃদ্ধি হয়েছে। আমেরিকায় বাংলা ভাষা-ভাষী ও বাংলাদেশের বৌদ্ধ জনগোষ্ঠির সংখ্যাও ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেকে শিক্ষা, ব্যবসা ও পেশাগত দক্ষতায় বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। তাই সময় ও প্রয়োজনের সাথে সংগতি রেখে স্ব-সংস্কৃতির চর্চা ও প্রচার অনিবার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

califonia1

বর্তমান ও ভাবী প্রজন্মকে আমাদের ধর্ম ও সংস্কৃতি অবহিত করণে বোধি মিশন ক্যালিফর্নিয়া বোধি বিহারের পৃষ্ঠপোষকতায় শিক্ষা ও প্রচারের প্রয়াস করে যাচ্ছে। বাংলাদেশি আমেরিকান বৌদ্ধ সংঘের সদস্য এবং ধর্মপ্রাণ দায়ক-দায়িকাদের যৌথ প্রয়াসে লংবীচ নগরের (1461 Lemon Ave ,Long Beach, Ca 90813 ) এই স্থানে ভাড়া করা গৃহে ২০০৯ সালে আমেরিকাস্থ বাংলাদেশি-ক্যালিফোর্নিয়া বোধি বিহারের শুভ সূচনা হয়।

 

califonia2

বহু প্রতিকূলতার মাঝেও এর অগ্রগতির ধারা পৌঁছে বর্তমান পর্যায়ে। পূজা,অর্চনা ধর্মীয় শিক্ষা ও ধ্যান চর্চার জন্য বিহারের নিজস্ব গৃহ সহ এক খন্ড জমি ক্রয়ের প্রয়োজনিয়তা অনেক। সেই প্রয়োজনিয়তা ২০১০ সালে শেষের দিকে পরিপূর্ণ রূপে রূপায়িত হয়েছে। সবার উদার সুন্দর মন-মানসিকতার অর্থদানের ফলে বর্তমানে বোধি বিহারটি লংবীচ নগরস্থ ১০২৩, ২১ ইষ্ট, ষ্ট্রীট, ক্যাল ৯০৮০৬ স্থানে অবস্থিত। বাংলাদেশের বাহিরে বৌদ্ধ বিহার, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান হলে বাংলাদেশের জন্য যেমন খুবই গর্বের, তেমনি যারা প্রবাসে অবস্থান করছেন তাদের সবার জন্যই আনন্দের বিষয়।

সম্মন্ধে Bappa Barua

নির্বাণকামী আমেরিকা প্রতিনিধি এবং বৌদ্ধ নবজাগরণ সংঘের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সাধারন সম্পাদক ।

এটা ও দেখতে পারেন

পূজনিয় শরনংকর বনাম ডঃ হাছান মাহমুদ বা এরশাদ শিরোনামটা শতভাগ সঠিক নয়

(লেখাটি যে কোন কেউ ছাপাতে পারেন আমার অনুমতির প্রয়োজন নাই) পূজনিয় শরনংকর বনাম ডঃ হাছান …

Leave a Reply