ব্রেকিং নিউজ

লিখেেন – সুমন রাজ

প্রবাসী ধর্মীয় সংগঠন গুলো আরো যদি সংগঠিত হতো স্বধর্ম প্রসারিত ও সামাজিক মর্যাদা আরো বৃদ্ধি পেতো।
***********************************************

অহিংসা পরম ধর্ম,জগতের সকল প্রাণীর সুখ কামনায়, মানব জাতির শান্তির জন্য কোন এক যুগসন্ধিক্ষনে অমেয় প্রেমের বার্তা নিয়ে তথাগত বুদ্ধ পৃথিবীতে আবিভুর্ত হয়েছিলেন। শান্তি-সাম্য-মৈত্রীই-অহিংসা বুদ্ধের মুল বাণী।বুদ্ধের এই সাম্য বাদী বাণী বিশ্বে পান্হপথে পৌঁছে দিতে প্রবাসে ধর্মীয় সংগঠন গুলোর ভূমিকা অনস্বীকার্য।

একটু বেশী ভালো থাকার আশায়,একটু বেশী ভালো রাখার আশায়-কর্মের স্বীকারে প্রবাস নামের অসহ্য যন্ত্রণাটা বেঁচে নিয়েছে তারা।ওরা সবাই পরবাসী (প্রবাসী)।ওরা সবাই স্বপ্নবাজ,ওদের স্বপ্নটা ছুয়ে গেছে সামাজিক মর্যাদা রক্ষা ও স্বধর্মের অগ্রগতিতে। বৌদ্ধরা জীবকার তাগিদে সুনামের সাথে বসবাস করে আসছে সারা বিশ্বজুড়ে। যেখানে গিয়েছে সুসংগঠিত হয়েছে তারা। প্রতিবাদে, উৎসবে,উদযাপনে,মানবতায় সহযোগিতায় প্রবাস জীবন হতে সাড়া দিয়েছে/দিচ্ছে প্রবাসে থাকা ধর্মীয় সংগঠন গুলো । শুধু তাই নয় স্বধর্মের পতাকা উড্ডীয়ন রাখতে সমাজ সংস্কারে অনুদান দিচ্ছে নিয়ত। পক্ষান্তরে দেখা যায় প্রবাসের মাটিতে বসে স্বধর্ম করছে হীন। ঘৃণিত করছে পুরা বৌদ্ধ জাতিকে। প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলছে বিশ্বের কাছে বুদ্ধের অহিংসা পরম ধর্ম বাণীকে। সংগঠনের নামে হানিহানি প্রতিহিংসার খেলায় জড়াচ্ছে নিয়ত।পদবী,আমিত্ব,নিয়ন্ত্রনকে বড় করে নষ্ট করছে সম্পর্ক।এমন কি প্রবাসে সংগঠন করার ঠেলাঠেলিতে অনেকে ছিন্ন করছে আত্বীয়তার বন্ধন।

ফ্রান্স,কানাডা,আমেরিকা, কুয়েত,ওমান,বাইরান সহ ইউরোপ-মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিটি দেশে কত জন বড়ুয়া বা বৌদ্ধ অনুসারী বাস করে? হয়ত তিনশত/পাঁচশত/হাজার ? তাহলে এই সামান্য জনগোষ্ঠির উপস্থিতের কেনো দুই-চারটা,সংগঠন,দল-বিহার? যদি দুই চারটা না হয়ে একটা হতো ! দশজনে যা করতে পারে তিন জনে যা করতে পারে না।সবাই যদি একতা বন্ধ হলে স্বধর্মের সুনাম আরো ছড়িয়ে পড়বে বিশ্বেপান্থে ও সার্থক হবে প্রবাস জীবন। আসুন প্রবাসে সবাই মিলে মিশে একতা বন্ধ হয়ে ধর্মীয় সংগঠন করি।
অহিংসা-শান্তি,জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক বুদ্ধের এই সাম্যবাদী বাণী দেশ মাতৃকার গন্ডি পেরিয়ে বিশ্বে দরবারে পৌঁছে দিতে প্রবাসী ধর্মীয় সংগঠন গুলোর অবদান ভুলার মত নয়। স্বপ্নবাজদের স্বপ্নে এগিয়ে চলুক সদ্ধর্ম ও সামাজিক সংস্কার এই প্রত্যাশায়-পরিশেষে বলবো –

থাকি মোরা দুর প্রবাসে
সদ্ধর্ম-জাতি মোদের অন্তরে।

মিলেমিশে করবো মোরা
স্বপ্নবাজ কর্মনীতি।

এতেই হবে নন্দিত বিশ্ব পান্থপথ
আমরা সবাই বৌদ্ধ জাতি।

সকল প্রবাসীদের নিরাপদ সুস্থ জীবন কামনা করি।
জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক।

সম্মন্ধে SNEHASHIS Priya Barua

এটা ও দেখতে পারেন

ঈশ্বরবাদে বিশ্বাসী নয় বৌদ্ধরা, -সুমন রাজ

বৌদ্ধরা ঈশ্বরবাদী নয়,নিজেই নিজের মুক্তিদাতা। ================================== সুমন রাজ জগত জুড়ে যত ধর্মের উৎপত্তি, সৃষ্টি হয়েছে …

Leave a Reply