ব্রেকিং নিউজ

আমেরিকায় গহীন মহা-অরণ্য বনভূমিতে ভাবনা কেন্দ্র নির্মান করেছেন শ্রীলংকার জন্মজাত হেনেপলা গুনারত্ন মহাথের

লিখেছেনঃ বাপ্পা বড়ুয়া, ভার্জিনিয়া,আমেরিকা!!গৌতম বুদ্ধের অহিংসা, মানব প্রেম ও অমিয় শান্তির বাণী বিশ্ববাসীকে দেখায় মহামিলনের পথ।বিশ্বের সর্বশক্তিমান ও ক্ষমতাধর দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্টের ভার্জিনিয়া বিভাগে মহাকারুনিক তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধ গৌতম বুদ্ধের চিরন্তন শান্তির বাণী, সাম্য মৈত্রী,করুণা,মুদিতা,উপেক্ষা,ন্যায়পরায়ণতা,সত্যবাদিতা,আত্মসংযমের গুণাবলি চারিদিকে প্রচারার্তে পশ্চিম ভার্জিনিয়ার ৪৮ একর গভীর মহাঅরণ্য বনভূমিতে মানব কল্যাণে শীল,সমাধি প্রজ্ঞা অনুশীলনের জন্য ভাবনা সোসাইটি (মেডিটেশন সেন্টার) প্রতিষ্ঠা করেন শ্রীলংকান জন্মজাত থেরবাদী ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের ।

usa_bappa_nirvanapeace_2

শ্রীলংকার এক গ্রামীণ পরিবেশে হেনেপলা গ্রামে ৭ ডিসেম্বর ১৯২৭ ইংরেজীতে ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের’র জন্ম। মাত্র ১২ বছর বয়সে স্বধর্মে প্রতি অনুপ্রাণিত হয়ে শ্রামন (সন্ন্যাসী) হয়ে বৌদ্ধ ধর্মীয় পাঠশালায় অধ্যায়ন শুরু করে। ২০ বছর বয়সে উপসম্পদা ( ভিক্ষুত্ব ) লাভ করেন। ১৯৬৮ ইংরেজীতে মার্কিন যুক্তরাষ্টের সাসানা সেভাকা সোসাইটির আমন্ত্রণে ওয়াশিংটন ডি.সি বৌদ্ধ বিহারের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব নেন,পরবর্তীতে সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন । মার্কিন যুক্তরাষ্টের আসার আগে তিনি ভারত এবং মালেয়শিয়ায় দশ বছর বৌদ্ধ ধর্ম প্রচার করে।ওয়াশিংটন ডিসি বৌদ্ধ বিহারে অবস্থান করে আমেরিকান ইউনিভার্সিটিতে অধ্যায়ন করে পাণ্ডিত্যপূর্ণ ধর্ম শিক্ষা অর্জন করেন ।

১৯৮৫ সালে আমেরিকান পথভ্রষ্ট মানুষকে সত্যের আলো মুক্তির পথ ধ্যান শিক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের সরকারী অনুমতি নিয়ে ভার্জিনিয়া শহর থেকে প্রায় ১৫০ মাইল দূরে ৪৮ একর গভীর মহাঅরণ্য বনভূমিতে নির্মান করে ভাবনা সোসাইটি (মেডিটেশন সেন্টার) ও ছোট ছোট কুটি ভবন । ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের প্রতিদিন পথভ্রষ্ট আমেরিকানদের চিত্তে (মনে) প্রশান্তি আনা এবং ধর্মীয় জ্ঞান লাভের জন্য ধ্যান ( ভাবনা ) শিক্ষা দিয়ে থাকেন।ধ্যান শিক্ষা প্রদানের সময় ধ্যানকারীদের বলেন একাগ্র স্বীয় চিত্তে ( মনে ) ধ্যান অনুশীলন করতে পারলে মন থেকে আমিত্ব বা অহংকারাদি,ক্রোধ হিংসা,কাম বিতর্ক-( পুরূষ যদি নারীর অথবা নারী যদি পুরুষের রূপ লাবণ্যে ও স্পর্শে সুখকামনা উদ্রেক করে তা চিত্তের কাম প্রবৃত্তি ), হিংসা বিতর্ক-( শত্রুকে মারার, হত্যা করার প্রবৃ্ত্তি ) ও রাগ বিতর্ক- ( তাকে কষ্ট দিব, দুঃখ দিব ) ইত্যাদি চিন্তা মন থেকে বিনাশ হয়। ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের ভাবনা সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা,পরিচালক ও আধ্যাত্মিক ধ্যান প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে মেত্তার অর্থাৎ মৈত্রীর উপর জোর দেওয়ায় খুব পরিচিত হন ।গুনারত্ন মহাথের বর্তমানে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত লেখক এবং আধ্যাত্মিক ধ্যান শিক্ষক।এই পর্যন্ত সম্পূর্ণ ইংরেজিতে ভাষাতে ৬ টি যৌথভাবে ১ টি মোট ৭ টি বই ও অনেক প্রবন্ধ লিখেছেন ।

ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের লিখিত বই সমূহ:-

(1)Bhavana Vandana: Devotions for Meditation.( Daily chanting book in English and Pali ) (2)Beyond Mindfulness in Plain English. (3) The Jhanas in Theravada Buddhist Meditation.( A brief explaination of deep meditative states) (4)The Path of Serenity and Insight.( An extensive look at the jhanas ) (5)Mindfulness in Plain English.( A meditation handbook ) (6)Eight Mindful Steps to Happiness.( Bhante G’s practical guide to The Buddha’s teaching ) (7)Journey to Mindfulness: The Autobiography of Bhante Gunaratana.

usa_bappa_nirvanapeace_1

১৯৯৬ সালে ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের উত্তর আমেরিকায় প্রধান সংঘ Nayaka উপাধিতে ভুষিত হয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডা বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ সন্ন্যাসী আসনে সমাসীন হয়।২০০৩ সালে তার আত্মজীবনী প্রকাশিত হয় ।২০০৫ সালে শ্রীলংকায় ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের নিজের নামে বৃত্তি ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠা করে গ্রামীণ শ্রীলঙ্কার দারিদ্র্য পীড়িত শিশুদের শিক্ষা অর্জনে প্রতিনিয়ত সহায়তা করে যাচ্ছেন।

উল্লেখ্য যে,একান্ত সৌজন্য সাক্ষাৎকারে তাঁর মানবের প্রতি প্রীতি,মৈত্রী, ভ্রাতৃত্ববোধ ও পারস্পরিক সৌহার্দ্য দেখে বিস্মিত হয়েছি।

●☞ তথ্য সহায়তায়:-ভিক্ষু গুনারত্ন মহাথের,প্রতিষ্ঠাতা:ভাবনা সোসাইটি
(মেডিটেশন সেন্টার ) ভার্জিনিয়া,আমেরিকা।

সম্মন্ধে Bappa Barua

নির্বাণকামী আমেরিকা প্রতিনিধি এবং বৌদ্ধ নবজাগরণ সংঘের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সাধারন সম্পাদক ।

এটা ও দেখতে পারেন

নিউইয়র্ক জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে মানববন্ধন আগামী ১০ মে

বাপ্পা বড়ুয়া,ওয়াশিংটন ডিসি থেকে !!দৈনিক জনকণ্ঠের হলুদ সাংবাদিক ফিরোজ মান্না শান্তির প্রবক্তা করুণাময় মহামানব গৌতম …

Leave a Reply